হাদীছের বাণী (পাঁচটির কারণে পাঁচটি)

ইবনে আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ

“পাঁচটির কারণে পাঁচটি হয়।” প্রশ্ন করা হল, হে আল্লাহর রাসূল! কি পাঁচটির কারণে পাঁচটি হয়? তিনি বললেনঃ

  • “(১) কোন জাতি যখন অঙ্গীকার ভঙ্গ করে,(আল্লাহর সাথে কৃত অঙ্গীকার অথবা অন্য জাতির সাথে কৃত অঙ্গীকার) তখন শত্রুদেরকে তাদের উপর কর্তৃত্বশালী করে দেয়া হয়।
  • (২) যখন তারা আল্লাহর নাযিলকৃত (কুরআন-সুন্নাহর) বিধান ছেড়ে মানব রচিত বিধান দ্বারা শাসন পরিচালনা করে,তখন তাদের মধ্যে অভাব ও আকাল দেখা যায়।  (অন্য বর্ণনায় আছেঃ তাদের পরস্পরের মাঝে মতভেদ ও অনৈক্য সৃষ্টি করে দিবেন।- ইবনে মাজাহ, বাইহাকী)
  • (৩) তাদের মধ্যে যখন অশ্লীলতা প্রকাশ পায়,(যেমন জেনা-ব্যভিচার, অশ্লীলতা ইত্যাদি) তখন অপমৃত্যু ব্যাপক আকার ধারণ করে। (অন্য বর্ণনায় আছেঃ তখন তাদের মধ্যে মহামারি ও দুরারোগ্য এমন ব্যাপক আকার ধারণ করবে যা পূর্ববর্তীদের মধ্যে ছিল না।– ইবনে মাজাহ)
  • (৪) যখন তারা (স্বর্ণ-রৌপ্য, অর্থ ও ফসল ইত্যাদির) যাকাত দিতে অস্বীকার করে,তখন তাদের জন্য আকাশের বৃষ্টি বন্ধ করে দেয়া হয়।  (অন্য বর্ণনায় আছে: পোঁকা-মাকড় ও পশু-পাখী না থাকলে বৃষ্টিই হত না।–ইবনে মাজাহ)
  • (৫) যখন তারা মাপে ও ওযনে কম দেয়, তখন তাদের মধ্যে উদ্ভিদ (ফসল) উৎপাদন বন্ধ করে দেয়া হয় এবং তারা দুর্ভিক্ষে পতিত হয়।” (ইবনে মাজাহর বর্ণনায় আছে: তখন তাদেরকে দুর্ভিক্ষ, আয়-রোজগারের স্বল্পতা ও জালেজালেম জালেম শাসকের অত্যাচার গ্রাস করবে।)

(হাদীছটি বর্ণনা করেছেন ত্বাবরানী। দ্রঃ সহীহ তারগীব ও তারহীব ১ম খন্ড হাদীছ নং 765)

মুহাঃ আবদুল্লাহ আল কাফী

[email protected]

Leave a Reply