বই ডাউনলোড করুন অথবা অনলাইনে পড়ুন: সারা বিশ্বের মুসলিমদের জন্য অত্যাবশ্যকীয় পাঠ সমূহ

 সারা বিশ্বের মুসলিমদের জন্য

অত্যাবশ্যকীয় পাঠ সমূহ

 الدروس المهمة لعامة الأمة لسماحة الشيخ عبد الله بن باز

বইটির সংক্ষিপ্ত পরিচয়:

  • লেখক: শাইখ আব্দুল্লাহ বিন বায (রহ.)
  • অনুবাদক: ইবরাহীম আব্দুল হালীম
  • সম্পাদনায়: আব্দুল্লাহিল হাদী আব্দুল জলীল
  • পৃষ্ঠা সংখ্যা: ২৭ (A4 size)

বইটি ডাউনলোড করুন:

অনুবাদকের কথা

 সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্যে যিনি মানব জাতি ও জিন জাতিকে তাঁর ইবাদত করার জন্যে সৃষ্টি করেছেন। সলাত ও সালাম বর্ষিত হোক আমাদের শেষ নাবী ও রাসূল মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের উপর যিনি তাঁর উম্মাতকে ছোট বড় সব ইবাদত করার পদ্ধতি বর্ণনা করে গেছেন। আরও সলাত ও সালাম বর্ষিত হোক তাঁর পরিবার ও তাঁর সাহাবাগণের উপর যারা তাঁর বর্ণিত পদ্ধতিতে আল্লাহর ইবাদত করে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানুষ হতে পেরেছিলেন।

  অতঃপর-

হে সম্মানিত পাঠক পাঠিকা! আল্লাহ আমাদের উপর তাঁর ইবাদত করা ফরয করেছেন এবং পাশাপাশি তার নির্ধারিত পদ্ধতিও বর্ণনা করেছেন। শুধু সে নির্ধারিত পদ্ধতিতেই ইবাদত করলে তা গ্রহণ হবে। অন্যথায় তা গ্রহণ হবে না। তাই ইবাদত শুরু কারার আগে আমাদের উপর সর্ব প্রথম ফরয হল তার পদ্ধতি সম্পর্কে জানা। অর্থাৎ কুরআন ও সহীহ হাদীসের জ্ঞান অর্জন করা। কুরআন ও সহীহ হাদীসের জ্ঞানার্জনের অনেক পথ আছে। তন্মধ্যে উত্তম পথ হল সরাসরি উস্তাযের কাছ থেকে ইলম গ্রহণ করা, যাকে আরবী ভাষায় (تلقي العلم من الشيخ مشافهة)  তালাক্কিউল ইলমে মিনাশ্ শাইখে মুশাফাহাতান বলা হয়। এ পথটি বাস্তবায়নার্থে আমি সামাহাতুশ্ শাইখ আব্দুল আজীজ বিন বায রহিমাহুল্লাহর লিখিত

الدروس المهمة لعامة الأمة

“সারা বিশ্বের মুসলিমের জন্যে অত্যাবশ্যকীয় পাঠ সমূহ” বইটির উপর আইভিসি ডট নেট ওয়েব সাইটের মাধ্যমে অন লাইনে ক্লাশ নিয়েছি যাতে কোরিয়া, সা’উদী আরব ও দুবাই সহ অন্যান্য দেশের বাংলাভাষী মুসলিম প্রবাসীগণ অংশগ্রহণ করেছিলেন।

জ্ঞানার্জনের দ্বিতীয় উত্তম পথ হল নির্ভরযোগ্য লিখকের বই পড়ে জ্ঞানার্জন করা। আমি এ পথটির প্রতি লক্ষ্য করে উক্ত বইটি শিক্ষা দানের সময়ে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করি, যাতে বাংলা ভাষাভাষী ভাই ও বোনেরা উক্ত বই হতে জ্ঞান অর্জন করে উপকৃত হতে পারে।

  পরিশেষে আমি আল্লাহর প্রশংসা করছি যিনি আমাকে এ ভাল কাজটি করার তাওফীক দান করেছেন। আরো কৃতজ্ঞতা আদায় করছি কোরিয়াস্থ Kyung Hee বিশ্ববিদ্যালয়ে পি, এইচ, ডি গবেষক মুহাম্মাদ মুতাহারুল ইসলাম ভাইয়ের যিনি বইটি দেখে দিয়েছেন। আল্লাহর কাছে আমার প্রার্থনা, তিনি যেন এটি আমার ও আমাদের ভাইদের পক্ষ থেকে যারা সহযোগিতা ও অংশগ্রহণ করেছেন কবুল করেন ও পরকালে মুক্তির ব্যবস্থা করেন।

বিনীত,  ইবরাহীম বিন আব্দুল হালীম

দক্ষিণ কোরিয়া

 

ভূমিকা:

সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্যে যিনি সারা জগতের প্রভূ এবং মুত্তাকিনদের জন্যেই (শুভ) পরিণতি ও ফলাফল। আল্লাহ তাঁর বান্দা,রাসূল ও আমাদের নাবী মুহাম্মাদ  সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপর সলাত ও সালাম বর্ষণ করুন। আরো সলাত ও সালাম বর্ষণ করুন তাঁর পরিবার ও সকল সাথীগণের উপর। অতঃপর দীন-ইসলাম সম্পর্কে সারা বিশ্বের সকল মুসলিমের জন্যে যা জানা ওয়াজিব তার কিছুর বর্ণনার ব্যাপারে এ সংক্ষিপ্ত লিখুনি। আমি এর নাম রেখেছিঃ সারা বিশ্বের  সকল মুসলিমের  জন্যে অত্যাবশ্যকীয় পাঠসমূহ। আমি আল্লাহর কাছে প্রর্থনা করছি, তিনি যেন এর দ্বারা মুসলিমদের উপকার করেন এবং তিনি যেন এটি আমার পক্ষ হতে গ্রহণ করেন। কারণ তিনি মহৎ ও উদার।

-আবদুল আজীজ বিন আবদুল্লাহ বিন বায (রহিমাহুল্লাহ)

সাবেক প্রধান মুফতি সৌদি আরব।

   প্রথম পাঠঃ

সূরা ফাতিহা ও কিছু ছোট ছোট সূরা

সূরা ফাতিহা এবং সূরা যালযালা হতে সূরা নাস পর্যন্ত  এ ছোট ছোট সূরাগুলো হতে যথা সম্ভব শিক্ষা করা অত্যাবশ্যক। যে ব্যক্তি পড়তে জানে না সে অন্যের নিকট শুনে শুনে পড়া শিখবে। পরে বিশুদ্ধভাতে তা মুখস্থ করবে এবং যা বুঝা অবশ্যই দরকার তার ব্যাখ্যা শিখবে।

দ্বিতীয় পাঠঃ

ইসলামের স্তম্ভ সমূহ

 ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের বিবরণ:

সর্বপ্রথম ও সর্ব বৃহৎ স্তম্ভ হল, “লাইলাহা ইল্লাল্লাহ; মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ” তথা আল্লাহ ছাড়া (সত্য) কোন উপাস্য নাই এবং মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আল্লাহর রাসূল। এ সাক্ষ্য দেয়া, আল্লাহ ছাড়া (সত্য) কোন উপাস্য নাই এর শর্তসমূহ সহ এর অর্থের ব্যাখ্যা করে।

এর অর্থ হল: لا إله) ) “কোন ইলাহ নাই” এর অর্থ হল: আল্লাহ ছাড়া যারই ইবাদত করা হয় তার সকলের প্রতি অস্বীকৃতি জানানো। إلا الله “আল্লাহ ছাড়া” এর অর্থ হল, এক ও অদ্বিতীয়  আল্লাহর জন্যেই সকল ইবাদত সাব্যস্ত করা।

লা ইলাহ ইল্লাল্লাহ এর শর্ত সমূহ:

১) ইলম বা জানা যার বিপরীত অজানা।

 ২) ইয়াকীন বা দৃঢ় বিশ্বাস যার বিপরীত সন্দেহ।

৩)  ইখলাস বা একনিষ্ঠতা যার বিপরীত শিরক।

৪) সিদক্ব বা সত্য যার বিপরীত মিথ্যা।

৫) ভালবাসা যার বিপরীত বিদ্বেষ।

৬) অনুগত হওয়া যার বিপরীত ত্যাগ ও বর্জন করা।

৭) কবুল বা গ্রহণ করা যার বিপরীত প্রত্যাখ্যান করা।

 ৮) আল্লাহ ছাড়া যার উপাসনা করা হয় তার অস্বীকার করা।

এ শর্তগুলো নিন্মে কবিতার দু’টি লাইনে একত্রিত করা হয়েছে:

علم يقين وإخلاص وصدقك مع       محبـة وانقيـاد والقبـول لها

وزيد ثامنها الكفران منك بما           سوى الإله من الأشياء قد أُلها

“মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আল্লাহর রাসূল” এ সাক্ষ্য দানের দাবী হল:

  • -তিনি যে ব্যাপারে সংবাদ দিয়েছেন সে সব ব্যাপারে তাঁকে সত্যায়ন করা।
  • -যে ব্যাপারে আদেশ করেছেন সে ব্যাপারে তাঁর আনুগত্য করা।
  • -যা থেকে নিষেধ ও সতর্ক করেছেন তা থেকে বিরত থাকা।
  •      -আর আল্লাহ ও তাঁর রাসূল যা প্রবর্তন করেছেন শুধু তার মাধ্যমেই আল্লাহর ইবাদত করা।

তারপর পাঠকদের জন্যে ইসলামের পাঁচ স্তম্ভের বাকি স্তম্ভগুলো বর্ণনা করা। আর তা হল:

২। সলাত প্রতিষ্ঠা করা।

৩। যাকাত আদায় করা।

৪। রমযান মাসের সিয়াম সাধন করা।

৫) সামর্থবান ব্যক্তিদের জন্যে আল্লাহর সম্মানিত ঘরের হজ্জ করা।

তৃতীয় পাঠঃ

ঈমানের রুকন সমূহ

ঈমানের রুকন বা স্তম্ভ হল ছয়টিঃ

১) আল্লাহর উপর বিশ্বাস স্থাপন করা।

২) তাঁর ফিরিশ্তাদের উপর বিশ্বাস স্থাপন করা।

৩) তাঁর কিতাব সমূহের বিশ্বাস স্থাপন করা।

৪) তাঁর রাসূলগণের বিশ্বাস স্থাপন করা।

৫) শেষ দিবসের প্রতি ঈমান আনা।

৬) ঈমান আনা ভাগ্যের ভাল-মন্দ এ সবই আল্লাহর পক্ষ হতে এ কথার প্রতি।

☞ পরবর্তী পৃষ্ঠায় যেতে অনুগ্রহ পূর্বক নিচে প্রদত্ব পৃষ্ঠা নাম্বারে ক্লিক করুন ☟

This Post Has One Comment

  1. Ami sheikh bin baz er akzon boro vokto.Ami take khub valobashi.Tini khub boro maper alem silen.Plese,tar onnanno boigulo apnara taratari publish korun.Ami tar shob boi porte chai.

Leave a Reply