অনলাইনে রাযামান প্রতিযোগিতা ২০১১ইং

অনলাইনে

রামাযান প্রতিযোগিতা ২০১১ইং

 প্রশ্নপত্রটি ডাউন লোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

পিডিএফ ভার্সন ডাউন লোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

নিম্নোক্ত প্রশ্নগুলোর সংক্ষেপে উত্তর দিন:

1) হিজরী কত সালে মুসলমানদের উপর রামাযানের রোযা ফরজ করা হয়?

2) পবিত্র কুরআনের কোন সূরার কত নাম্বার আয়াতের মাধ্যমে রামাযানের রোযা ফরয করা হয়?

৩) রামাযান মাসের একটি  ফযীলত উল্লেখ করুন।

৪) রামাযানের রোযার একটি ফযীলত উল্লেখ করুন।

৫) রোযার নিয়ত কিভাবে করতে হবে?

৬) লাইলাতুল কদরের একটি ফযীলত  উল্লেখ করুন।

৭) লাইলাতুল কদরের মর্যাদার ব্যাপারে একটি সূরা আছে সে সূরাটির নাম কী?

৮) কুরআন মাজীদ কখন অবর্তীণ হয়? শবে বরাতে না শবে কদরে?

৯) রোযা ভঙ্গের দুইটি কারণ লিখুন।

১০) রোযা অবস্থায় সফর করলে রোযা ভাঙ্গা জায়েয আছে কি?

১১) স্বপ্নদোষ হলে রোযা ভঙ্গ হবে কি?

১২) ধুমপান করলে রোযা ভঙ্গ হবে কি?

১৩) মহিলাদের উপর কোন কোন অবস্থায় রোযা রাখা হারাম?

১৪) সাদাকায়ে ফিৎরার পরিমাণ কত?

১৫) রামাযান মাসে ওমরা আদায় করার ছোয়াব কী?

১৬) অসুখের জন্য রিং, সুতা, তাবিজ-কবজ ইত্যাদি ব্যবহার করা জায়েয কি?

১৭) সব চেয়ে ভয়াবহ পাপ কোনটি?

১৮) ইবাদত কবুল হওয়ার শর্ত কয়টি ও কী কী?

প্রতিযোগিতার নিয়মাবলী:

১) প্রতিযোগিতার ফরমটি ডাউনলোড করে তাতে উত্তর লিখে আমাদের ইমেইল ঠিকানায় পাঠিয়ে দিন। অথবা আলাদা পৃষ্ঠায়  উত্তর লিখে পাঠালেও গ্রহনযোগ্য হবে।

ইমেইল: [email protected] অথবা  ashah[email protected]gmail.com অথবা [email protected]

৩) উত্তর পত্রে আপনার নাম, আন্তর্জাতিক কোড সহ মোবাইল নং এবং ইমেইল লিখুন।

৪) উত্তর পাঠানোর শেষ তারিখ: ২২ আগস্ট, সোমবার ২০১১। ফলাফল ঘোষণা: ২৩ আগস্ট, মঙ্গলবার ২০১১

৫) এক ব্যক্তির জন্য মাত্র একটি উত্তর পঠানো অনুমোদিত।

৬) পুরস্কার হিসেবে থাকছে: প্রত্যেক বিজয়ীর জন্য বিশ রিয়াল বা প্রায় সমমূল্যের মোবাইল ব্যালেন্স।

৭) বিজয়ী নির্বাচিত হলে তার মোবাইল নাম্বার নিশ্চিত হওয়ার পর তাতে বিশ রিয়াল ব্যালেন্স ট্রান্সফার করা হবে। তবে সৌদী আরবের জুবাইল বা তার নিকটস্থ শহরে অবস্থানকারীগণ আমাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করে পুরস্কার নিতে পারবেন।

শর্ত থাকে যে, প্রতিযোগীর দেশে সৌদী আরব থেকে ব্যালেন্স ট্রান্সফার যোগ্য হতে হবে। যদি ট্রান্সফার সাপোর্ট না করে তবে পুরস্কার পাঠানো সম্ভব হবে না। মোটকথা, আমরা যথাসম্ভব  পুরস্কার পাঠাতে চেষ্টা করব। সব চেয়ে উত্তম হল যদি সৌদী আরব অথবা বাংলাদেশের নাম্বার দেয়া হয় তবে সহজে তাতে  ব্যালেন্স ট্রান্সফার করা যাবে।

৮) বিজয়ী অধিক হওয়ার ক্ষেত্রে লটারীর মাধ্যমে মোট পঁচিশ জন বিজয়ীকে পুরস্কৃত করা হবে ইনশাআল্লাহ।

৯) অন্যের উত্তর পত্র থেকে কপি-পেস্ট করা হারাম। কারণ, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: “যে আমাদের সাথে প্রতারণা করল সে আমার উম্মতের অন্তর্ভূক্ত নয়।” (সহীহ মুসলিম)

সম্মানিত ভাই, পুরস্কার বড় কথা নয় বরং প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণের মাধ্যমে জ্ঞান চর্চা এবং দাওয়াতী কাজে অংশ গ্রহণই গুরুত্বপূর্ণ। আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে ভাল কাজে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যমে দুনিয়া ও আখেরাতে সাফল্যমণ্ডিত করুন। আমীন।

Leave a Reply