Sat. Jul 24th, 2021

‘তাওহীদ পুনরুদ্ধার’

ভণ্ডদের মুখোশ খুলে দিতে একটি সাহসী উচ্চারণ

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। সম্মানিত ভাই,

    • আমাদের আবেগ প্রবণ জাতি ‘তাওহীদী জনতা’ বলে মিছিলে মিছিলে রাজপথ কাঁপিয়ে তুলে কিন্তু তার কাছে তাওহীদের ব্যাখ্যা শুনলে হতভম্ব হতে হয়।
    • কতিপয় বক্তা ওয়াজের সুললিত সুরে বিগলিত কণ্ঠে মানুষের চোখে অশ্রুর বন্যা বইয়ে দেয় কিন্তু অবলীলাক্রমে তারা মানুষকে এমন সব শিরক ও বিদআতের প্রশিক্ষণ দেন যা দ্বীনের জন্য অত্যন্ত ভয়াবহ রূপ ধারণ করে।
    • কতিপয় পীর সাহেব তাদের মুরিদদেরকে ‘ওজীফা শিক্ষা’র এমন কিছু চটি বই হাতে উঠিয়ে দেন যার পাতায় পাতায় লুকিয়ে থাকে অসংখ্য শিরক, বিদআত ও ইসলামের দৃষ্টিতে সম্পূর্ণ অগ্রহণ যোগ্য কথা-বার্তা। তাই তো তাদের বইয়ে তথাকথিত ‘আল্লাহর পাগলগণ’ নবীদের উপর বেশি মর্যাদা পায়। তথাকথিত সাধকগণ কুফুরী ও শিরকী কথা বলেও ‘মহামানব’ হিসেবে উল্লেখিত হয়। এ রকম আরও কত কি!
    • অনুরূপভাবে আমাদের সমাজে ‘বয়ান’ এর নামে চলছে বানোয়াট সোওয়াব আর শিরকের মত ভয়াবহ ঈমান বিধ্বংসী বিষয়ের চর্চা।
    • যে মাদরাসাগুলো হওয়া উচিৎ ছিল তাওহীদ শিক্ষার দুর্গ। পরিতাপের বিষয় হচ্ছে অনেক মাদরাসা আজ দর্গার রক্ষক এবং এমন মাদরাসা হাতে গোণা যেখানে আকীদা বিষয়ক সিলেবাস পাওয়া যাবে।এভাবে সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতি আর ইসলামের নামে অনৈসলামিক কার্যক্রমের প্রমাণ ভিত্তিক উপস্থাপনা সাথে কুরআন ও সহীহ হাদীস ভিত্তিক সেগুলোর সাহসী প্রতিবাদ দিয়ে ‘তাওহীদ পুনরুদ্ধার’ বইটি সাজানো হয়েছে। এ সাহসী কাজটি করেছেন বিশিষ্ট দাঈ শাইখ মুহা: আব্দুল্লাহ আল কাফী।

অত:এব—–

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *